বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০৮:৩১ পূর্বাহ্ন
ঘোষণাঃ
বহুল প্রচারিত বঙ্গবাজার পত্রিকায় আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিতে আজই যোগাযোগ করুন,এছাড়াও আপনার আশেপাশে ঘটে যাওয়া কোন ঘটনা, দুর্ঘটনা, দুর্নীতি, ভালো খবর, জন্মদিনের শুভেচ্ছা, নির্বাচনি প্রচারণা, হারানো সংবাদ, প্রাপ্তি সংবাদ, সংর্বধনা, আপনার সন্তানের লেখা কবিতা, ছড়া,গান প্রকাশ করতে যোগাযোগ করুন। ❤️দেশ সেরা পত্রিকা হতে পারে আপনার সহযাত্রী ❤️

মা হলেন পাগলী বাবা হলেন না কেউ

  • বঙ্গ নিউজ ডেস্কঃ প্রকাশিত বৃহস্পতিবার, ২৯ সেপ্টেম্বর, ২০২২
  • ৬১ বার পড়া হয়েছে

অনলাইন ডেস্কঃ বিগত ৩/৪ মাস পূর্বে সিতাকুন্ডের ময়লার ডাস্টবিন/ভাগারে উলঙ্গ অবস্থায় পরে ছিল নাম পরিচয়হীন বাক প্রতিবন্ধি মানসিক ভারসাম্যহীন পাগলী। স্থানীয়দের ধারণা ছিলো পাগলী গর্ভবতী হয়েছেন।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার টিম। অনেক প্রতিকুলতা জেনেও এই প্রথম মানসিক ভারসম্যহীন গর্ভবতী মানসিক ভারসাম্যহীন মেয়েরির দায়ীত্ব নেয় চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার প্রতিষ্ঠাতা মিলটন সমাদ্দার।

দীর্ঘ দিনের পরিচর্যায় বোবা পাগলী মেয়েটি আজ ভোর ৪ ঘটিকার সময় জন্ম দেন ফুটফুটে একটি পূত্র সন্তান। কিন্তু শিশুটির মা হয়তো কোনদিনই বলতে পারবেনা কে দেবশিশুটির বাবা। চাইল্ড এন্ড ওল্ড এইজ কেয়ার বৃদ্ধা আশ্রমের দীর্ঘ ৮ বছরের পথচলায় এই প্রথম আশ্রমে একটি শিশুর জন্ম হলো। আশ্রমের প্রতিষ্ঠাতা জানালেন তিনি এবং তার স্ত্রী শিশুটিকে বাবা মায়ের আদর দিয়ে বড় করবেন।

বাচ্চাটিকে পেয়ে বৃদ্ধা আশ্রমের কর্মকর্তা/কর্মচারীসহ প্রতিষ্ঠাতা মিলটন সমাদ্দার ও তার স্ত্রী খুবই আনন্দিত। তবে রাস্তায় পরে থাকা বা ঘুরে বেড়ানো পাগলীদের জোর করে বা প্রলুব্ধ করে ধর্ষণ কিংবা এমন অমানবিক আচরণ সমাজিক শৃংখলা নষ্ট করে। বিনষ্ট করছে সামাজিক পরিবেশ।

বৃদ্ধা আশ্রমের প্রতিষ্ঠাতা মিলটন সমাদ্দার বলেন- এমন নোংরা মানসিকতা এক শ্রেণীর মানুষের মধ্যে দিন দিন বেড়েই চলেছে।

সংবাদ পেয়ে আমি বৃদ্ধাশ্রমে গিয়েছিলাম। নিস্পাপ ফুলের মত বাচ্চাটিকে কোলে নিলাম। ১৬৮ জন অসহায় বৃদ্ধ এবং বৃদ্ধা এবং বেশকিছু অসহায় শিশুকে সেবা যত্ন এবং খাবার দিয়ে এখানে প্রতিপালন করা হচ্ছে। এই মহতী উদ্যোগে আমি ইতিপূর্বেও শামিল হয়েছি। আজ আবারও সামান্য শরীক হলাম। জনাব মিল্টন সমাদ্দার সদ্য পৃথিবীতে আসা বাচ্চাটির নাম দিতে বললেন। আমি বাচ্চাটির নাম দিলাম আব্দুর রহমান রাব্বী। রাস্তাঘাটে পরে থাকা মানসিক ভারসাম্যহীন অসহায় মানুষ বিশেষত নারীদের সম্ভ্রম রক্ষায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সহ আমাদের এগিয়ে আসতে হবে। সচেতন ও মানবিক ব্যাক্তিদের ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসতে হবে অসহায় ও সুবিধা বঞ্চিতদের জন্য আশ্রয় খাদ্য বস্ত্র শিক্ষা প্রদানসহ গড়ে তুলতে হবে বসবাসযোগ্য সুন্দর একটি পরিবেশ। রাব্বীর মা হয়তো সন্তান প্রতি পালন করতে পারবেনা। কিন্ত আশা করা যায় বৃদ্ধাশ্রমের নিঃস্বার্থ মানুষগুলোর পরম মমতায় শিশুটি ভবিষ্যতে মানবিক মর্যাদা নিয়ে বেড়ে উঠবে আপন আলোয়।

লেখকঃ মোঃ মোজাম্মেল হক, বিপিএম, ডিআইজি, অধিনায়ক, র‍্যাব-৪, মিরপুর, ঢাকা।

এই ধরনের আরও খবর

Advertising

আর্কাইভ

আপনার প্রতিষ্ঠানের বিজ্ঞাপন দিন এখানে

জেলা প্রতিনিধি হতে যোগাযোগ করুন

সপ্তাহের সেরা ছবি

© All rights reserved © 2022 bongobazarpatrika.com
Theme Download From ThemesBazar.Com